করোনাঃ সিলেটে সবচেয়ে বেশি রোগী শনাক্ত যে দুই উপজেলায়

নিজস্ব প্রতিবেদক : সিলেটের সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ছে নোবেল করোনাভাইরাস। যেমন শহর তেমন গ্রাম। সবদিকেই করোনার শক্ত ছোবল। এ পর্যন্ত সিলেটের ২৩৪৮ জনের শরীরে ধরা পড়েছে প্রাণঘাতি করোনা। তন্মধ্যে সিলেট মহানগরসহ সদর উপজেলায়ই পাওয়া গেছে সবচেয়ে বেশি করোনা রোগী। এরপরেই করোনাভাইরাসের রোগী শনাক্ত হয়েছে জকিগঞ্জ উপজেলায়।

রবিবার সকাল পর্যন্ত সিলেট মহানগরসহ সদর উপজেলায় করোনাভাইরাসের রোগী পাওয়া গেছে ১৪৯৮ জন । এছাড়া জকিগঞ্জ উপজেলায় ১১৬ জন, গোলাপগঞ্জে ১০৬, কানাইঘাটে ১০৬, জৈন্তাপুরে ৫৭, বিশ্বনাথে ৭৩, দক্ষিণ সুরমায় ৩৩, ফেঞ্চুগঞ্জে ৪৪, বিয়ানীবাজারে ৫১ ও গোয়াইনঘাট উপজেলায় ৪৫, বালাগঞ্জে ৩৩, ওসমানীনগরে ৭ ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় ৫ জন রয়েছেন। গতকাল রবিবার সকাল পর্যন্ত এই হিসেব আপডেট করেছেন সংশ্লিষ্টরা। রবিবার দিনের বেলা ও সোমবার সিলেটে আরও ১৭৪ জনের শরীরে শনাক্ত হয়েছে করোনা। করোনায় আক্রান্ত এই ১৭৪ জন সিলেটের বিভিন্ন উপজেলার রয়েছেন বলে স্বাস্থ্য অধিদফতর সিলেট বিভাগীয় অফিসের সহকারি পরিচালক ডা. আনিসুর রহমান জানান। সে হিসেবে সিলেটের বিভিন্ন উপজেলা ওয়ারী করোনা রোগীর সংখ্যা আরো যুক্ত হবে।

সিলেট সদর উপজেলায় করোনাভাইরাসের বেশি রোগী তার কারণ হিসেবে জানা গেছে, বিভাগীয় নগরী হিসেবে এখানে প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। মহানগরীর অসংখ্য মানুষ প্রতিদিনই শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালে নিজ ইচ্ছায় গিয়ে নমুনা পরীক্ষা করাচ্ছেন। এতেই শনাক্ত হচ্ছে করোনাভাইরাসের রোগী।

কিন্তু জকিগঞ্জ সিলেটের সীমান্তবর্তী উপজেলা। এ উপজেলায় অনেক পরে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছিল। কিন্তু এ উপজেলায় বেড়েই চলছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। সদর উপজেলা পরে সবচেয়ে বেশি করোনা রোগী রয়েছে জকিগঞ্জ উপজেলায়। এ উপজেলায় এখন পর্যন্ত ১১৬ জনের শরীরে শনাক্ত হয়েছে করোনা।